Author Archives: admin

বাংলাদেশের ২২ তম রাষ্ট্রপতি নিয়ে চলছে জল্পনা-কল্পনা।রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সুষ্ঠুভাবেই দায়িত্ব পালন করেছিলেন।প্রধানমন্ত্রীর অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মসিউর রহমান হতে পারেন এবারের প্রেসিডেন্ট।তিনিই আমাদের সোসাইটির সবুজ সংকেত বা সবুজ প্রস্তাব। এ প্রস্তাবে রাজি না হলে বাংলার বামপন্থীদের নিয়ে আসবে আমাদের দীর্ঘ আন্দোলনের প্রস্তুতি।রাষ্ট্রপতিকে যেমন হতে হয় বিচক্ষণ তেমনি অভিজ্ঞতাপূর্ণ।বেনজিন রিং সোসাইটির বিশেষ মিটিংয়ে মসিউর রহমানকে রাষ্ট্রপতির পদ দেবার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।নির্বাচন নিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী জনাব ওবায়দুল কাদেরের মন্তব্য সন্তোষজনক নয়।মসিউর রহমানের প্রথম দায়িত্ব হতে পারে জলবায়ু পরিবর্তনের উপর সিদ্ধান্ত গ্রহণ।রাজনৈতিকভাবে তিনি কারুরই মতাদর্শের শিকার হবেন না।মোটকথা, তাকে আগাগোড়া সৎ ও নিরপেক্ষ থাকতে হবে।সভাপতি মুশফিক বরাতের ( আমি ) মন্তব‍্য হলো, ‘ দেশের সকল রাজনৈতিক দলকে নির্বাচন ও দাবি-দাওয়া আদায়ে সুযোগ সৃষ্টি করে দিতে হবে।’ বেনজিন রিং সোসাইটির এলিট মেম্বার হৃদয় চন্দ্র দাস এ ব‍্যাপারে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন।বাংলাদেশ ইতিহাসের সবচেয়ে কলঙ্কজনক অধ‍্যায়ের মধ‍্য দিয়ে যাচ্ছে।কালোবাজারি, ঘুষ, অর্থ কেলেঙ্কারি, নারী পাচার নিত‍্য-নৈমিত্তিক ব‍্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছে।এসব কারণে বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাত…

Read more

৫০ হাজার বছর পর বিরল সবুজ ধুমকেতু দেখার সুযোগঃ- প্রায় ৫০ হাজার বছর পর পৃথিবীর কাছাকাছি দিয়ে যাচ্ছে একটি বিরল সবুজ ধুমকেতু। এই ধুমকেতুটি সবশেষ পৃথিবীর কাছাকাছি এসেছিল প্রস্তর যুগে।মহাকাশ বিজ্ঞানীরা ২০২২ সালের ২ মার্চ এই ধূমকেতুটি আবিষ্কার করেন। যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার পালোমার অবজারভেটরির একটি পর্যবেক্ষণ ক্যামেরায় এ ধূমকেতু ধরা পড়ে। যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণাপ্রতিষ্ঠান নাসা জানায়, গত ১২ জানুয়ারি ধূমকেতুটি সূর্যের কাছাকাছি এসেছিল। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন। নাসার গবেষকেরা ধূমকেতুটির নাম দিয়েছেন সি/ ২০২২ ই৩ (জেটিএফ)। ( সংগৃহীতঃ বাংলা ট্রিবিউন অনলাইন পত্রিকা)

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারটি দীর্ঘদিন যাবৎ বন্ধ।নতুন মেয়র আমজাদ হোসেনকে তা শীঘ্রই খুলে দেবার আহ্বান জানাচ্ছি। আহ্বানে- কমরেড মুশফিক বরাতকমরেড জাকির হোসেন

কেউ যদি প্রশ্ন করে হুমায়ূন আহমেদের নেক্সট উপন‍্যাসের নাম কি হতো!আমি তো অনেক কিছুই ভাবব।তারপর কী লিখব?ভাবতে হবে তাও।শেষ মন্তব্যে হেসে দেবেন না যেন।ভাবছিলাম ‘ নারী ‘ হয়তো।তাও না।এটা বোধহয় ভুল বললাম।ভগবান তাই বলবেন।আমার সবচেয়ে প্রিয় বন্ধুটিও তাই মন্তব‍্য করে বসলো।সারাজীবন যদিও তাও করলো।এখন আসল কথাটিও বলবো।শেষ উপন‍্যাসটির নাম হলো- বিগবস।হুমায়ূন নিশ্চয়ই ধরতে পেরেছিলেন নারীদেহের মধ‍্যে তেমন কিছু নেই।যা আকর্ষণযোগ‍্য।বিশেষ কিছু আছে।তবে তা দিয়ে পৃথিবী চলে না।চালানো যায় না।বিজনেস তো করতে বলেছিলেন আল্লাহ্।মানুষ নয়।একটা উদাহরণ দেয়া যেতে পারে।মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে কোনো নারী প্রেসিডেন্ট ছিলনা।তিনি একটা কথা বলতে পারেননি।তারপরও নারীর কাছে ক্ষমা না চেয়ে নিও না।একটা প্রশ্ন কারো কারো কাছে রাখতে চাই?হিমু অর্থাৎ হুমায়ূন সাহেব সর্বপ্রথম কোন উপন‍্যাসে বিয়ের কথা পাড়লেন?আমাদের সমাজ তো বিয়েকে গ্রহণ করেছে।বিয়ে করতে পারাটা সত‍্যিই একটা গর্বের বিষয়।এমনও তো হতে পারতো পৃথিবীতে কারুরই বিয়ে হয়নি।আমি এক কথায় বলব তখন সকলেই চ‍্যালেঞ্জের মুখে। বাংলাদেশটা কেমন? পৃথিবীটা কেমন? নারীরা কেমন প্রকৃতির!

10/631