প্রাকৃতিক নিসর্গের আটরাই

প্রাকৃতিক নিসর্গের আটরাই

আটরাই একটি গ্রাম।উত্তর, মধ‍্য ও দক্ষিণ তিনটি অংশ মিলে গ্রামটি গঠিত।বাংলাদেশের প্রত‍্যন্ত হলেও খুবই বিখ‍্যাত।এ গ্রামে অনেক বিখ‍্যাত ব‍্যক্তির বাড়ি।তারা হলেন- মুশফিক বরাত, মোজাম্মেল হোসেন, ড. আব্দুল বারী, নুরূল আনাম, মুস্তাকিম হুসাইন এমন অনেকেই।মোজাম্মেল হোসেন ছিলেন বিশিষ্ট বাম রাজনীতিবিদ, সংগঠক।তিনি ওয়ার্কার্স পার্টির পার্বতীপুর উপজেলার দীর্ঘদিনের সভাপতি ও বাংলাদেশ আখচাষী ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।এর পরবর্তীতে উপজেলা শাখা সিপিবির সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন।মুশফিক বরাত একজন বিখ‍্যাত প্রাবন্ধিক, উপন‍্যাসিক।তার অনেক লেখা বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।ড. বারী ইসলামী পণ্ডিত, লেখক ও শিক্ষাবিদ, যিনি বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান এবং রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ছিলেন। এছাড়াও উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ছিলেন।তিনি তার মেধা, দক্ষতা এবং বলিষ্ঠ অবদানের মাধ্যমে এদেশের শিক্ষা-সংস্কৃতি ও জ্ঞানের জগতকে সমৃদ্ধ করে গেছেন।নুরূল আনাম শক্তি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের প্রতিষ্ঠাতা যাকে সকলেই মানবদরদী ও সফল ব‍্যবসায়ী হিশেবে চেনে।মুস্তাকিম হুসাইন বাংলাদেশ গ্রীণ পার্টির কেন্দ্রীয় মহাসচিব ও দৈনিক মুখের কথা পত্রিকার সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি।


এ গ্রামের পরিবেশ খুবই ঠান্ডা ও বরাবরই জলবায়ু স্বাভাবিক তাপমাত্রায় থাকে।বড় বড় প্রাচীন বৃক্ষে পরিপূর্ণ আর হাটবাজারে ভরপুর।এটি দিনাজপুর জেলার পার্বতীপুর উপজেলার ৪ নং পলাশবাড়ি ইউনিয়নের একটি প্রাচীন গ্রাম।গ্রামটিতে নূরুল হুদা উচ্চ বিদ‍্যালয় নামে বহুল চর্চিত একটি প্রাচীন প্রতিষ্ঠান আছে।যেটি ১৯০৭ সালে প্রতিষ্ঠিত এবং যার নতুন একাডেমিক ভবনটি ২০১৮ সালে তৈরি হয়েছে।একটি পুরোনো হাট আছে যার নাম ডাঙ্গার হাট।তাছাড়া করতোয়া নদীর পাশ ঘেঁষে ফুলের ঘাট নামে একটি স্থান রয়েছে।যেখানে বৈকালী প্রহরের জন‍্য গ্রামের মানুষ বেড়াতে আসে।কমরেড মোজাম্মেল হোসেনের নিজস্ব জমিতে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর গণস্বাস্থ‍্য কেন্দ্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে যেখানে অসংখ্য মানুষ বিনামূল‍্যে চিকিৎসার জন‍্য আসে।

অতি পুরোনো নূরুল হুদা উচ্চ বিদ_্যালয়
ঐতিহ্যবাহী ছুড়ির স্কুল
গ্রামের মায়াময় সবুজে ঘেরা একটি পরিবেশ

1 comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *